করোনাযোদ্ধা ইউএনও তাপ্তি চাকমা কারোনায় আক্রান্ত

207

চ্যানেল ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্কচ্যানেল ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনার শুরু থেকে জীবন বাজি রেখে যিনি এলাকার মানুষকে সুরক্ষিত রাখার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, যিনি নিজের কথা এমনকি ছোট্ট নিজের সন্তানের কথাও কখনো ভাবেননি, এলাকার মানুষের জন্য সকাল থেকে রাত অব্দি ছুটে চলেছেন এই গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিতে, তিনি আজ নিজেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত তিনি কুমিল্লার হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাপ্তি চাকমা, শনিবার তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। বর্তমানে তিনি সরকারি বাসভবনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আবদুছ ছালাম সিকদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা করোনা সংকটের শুরু থেকেই হোমনার কর্মহীন শ্রমিকদের পরিবারের পাশে থেকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছে করোনার সম্মুখ সারির যোদ্ধা হিসেবেই তাকে মনে করেন হোমনা উপজেলাবাসি।হতদরিদ্রের মাঝে সরকারী ত্রান বিতরণ, আক্রান্তদের সহায়তা প্রদান, মৃত্যু ব্যক্তিদের দাফনেও ছিলেন তিনি সম্মুখে। পাশাপাশি করোনা প্রতিরোধে তার কঠোরতাও ছিল নজরকাড়ার মত। বিশেষ করে রমজানে ইফতার বিতরণ, ঈদে নতুন জামা কাপড় বিতরণ করে সাধারণ মানুষের হৃদয়ের মাঝে স্থান করে নিয়েছেন তিনি।নিজের জন্মদিনে হতদরিদ্রদের মাঝে নতুন জামা ও খাদ্য বিতরণ করে তিনি সকলের প্রশংসা কুড়িয়েছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বলেন, ইউএনও’র ম্যাডামের শারিরিক অবস্থা ভাল আছে। তাঁর মনোবল শক্ত রয়েছে। তিনি সব ধরনের নিয়ম মেনে চলছেন। আজ শনিবার বিকালে তার করোনা পজেটিভ নিশ্চিত হওয়ার পর হোমনার সরকারী বাসায় স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।
হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা( ইউএনও) মুঠোফোনে জানান, এর পূর্বে দুইবার করোনার স্যাম্পল নেয়া হয়েছিল। তখন রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। বুধবার থেকে কিছুটা অসুস্থ্যবোধ করায় পুনরায় স্যাম্পল প্রেরণ করা হয়। আজ রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। আমি শারীরিক ভাবে সুস্থ্য আছি। সাস্থ্যবিধি মেনে হোম কোয়ােরেন্টিনে আছি। সকলের নিকট আমার সুস্থ্যতার জন্য দোয়া কামনা করছি। উপজেলাবাসি যেন সুস্থ্য থাকেও ভাল থাকে সেই কামনা করছি।
বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের তথ্যমতে ,করোনা সংকট শুরু থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা অসহয়ের পাশে ছিলেন।