হোমনায় করোনা আতঙ্কে স্বেচ্ছায় লকডাউন পাঁচ গ্রাম

193

কুমিল্লার হোমনায়  করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে পাঁচ গ্রামের বাসিন্দরা স্বেচ্ছায় লকডাউন করে দিয়েছে তাদের গ্রাম । গ্রামগুলো হলো  হোমনা পৌরসভার  আদর্শ পাড়া,  বাগমারা ও গোয়ারীভাঙ্গ, মাথাভাঙ্গ ইউনিয়নের দ্বাড়িগাও  ও ভাষানিয়া ইউনিয়নের কাশিপুর ।
জানাগেছে, এ সমস্ত গ্রামে কারো শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা  না গেলেও  আগাম সতর্কতা হিসেবে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে গ্রামবাসী জানান, ।  এসব গ্রামে ঢাকা,  নারায়নগঞ্জ  ও বিদেশ থেকে  কিছু লোক বাড়ি এসেছে ।  স্থানীয়  প্রশাসন তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন । তাই করোনা মহামারী থেকে নিজেদের রক্ষার স্বার্থে  তারা  স্বেচ্ছায় লকডাউন করে দিয়েছে গ্রাম। এতে করে গ্রামে বাইরে থেকে কেউ প্রবেশ করতে পারছে না। আর এখানকার বাসিন্দারাও একান্ত প্রয়োজন ছাড়া গ্রামের বাইরে যাচ্ছেন না।
গতকাল বুধবার সকাল ১০ টার দিকে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে গ্রামের  প্রবেশ পথে বাঁশ ও গাছের গুঁড়ি ফেলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে  নোটিশ টাঙ্গিয়ে দেয়া হয়েছে । তাতে লেখা রয়েছে  প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি ছাড়া বহিরাগতদের গ্রামে প্রবেশ নিষেধ ।
 ওমরাবাদ গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা এরসাদ হোসেন মাষ্টার  জানান, ‘করোনা সতর্কতায় কাশিপুর গ্রামে বহিরাগতদের প্রবেশ ঠেকাতে গ্রামবাসী যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা নিঃসন্দেহে অনেক ভালো কাজ।  এটি দেখে অন্যরাও অনেক সচেতন ও উদ্বুদ্ধ হবেন।
 বাগমারা গ্রামের কাউন্সিলর আবুল হোসেন জানান, বাগমারা গ্রামে নারায়নগঞ্জ থেকে কিছু লোক বাড়ি এসেছে। তারা হোম কোয়ারেন্টিনে আছে । করোনা ঝুঁকি এড়াতেই সচেতন গ্রামবাসী এ উদ্যোগ নিয়েছেন।’
এ বিষয়ে  পৌর মেয়র এ্যাড. নজরুল ইসলাম বলেন, ‘সচেতন গ্রামবাসী নিজেদেরকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা প্রশংসনীয়।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাপ্তি চাকমা জানান, করোনা রোগী সনাক্ত না হওয়ায় কোন গ্রামকে লকডাউন ঘোষনা করা হয়নি ।  তবে মানুষকে ঘরমূখো করতে  অনেক চেষ্টা করে যাচ্ছি ।এমতাবস্থায় জনগন  স্বেচ্ছায় লকডাউন পালন করছে । এতে করোনার ঝুঁকি অনেকটা কমে আসতে পারে । এ জন্য তাদেরকে এ কাজকে বাধা ও দিচ্ছি না ।