কুমিল্লার হোমনায় শিশু গৃহ পরিচারিকাকে ধর্ষণ- ধর্ষক আটক

342

কুমিল্লার হোমনায় তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ুয়া এক শিশু গৃহ পরিচারিকাকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। জেলার হোমনা উপজেলার ওপারচর পাইয়া গাজী বাড়ীতে গত সোমবার এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষকের পরিবার ধর্ষণের আলামত নষ্ট করে বিষয়টি গোপনে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্ঠা করে। এই ঘটনায় ভিকটিমের মা রোমেলা বেগম বাদি হয়ে হোমনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে ধর্ষক সাইদুর রহমান সাব্বিরকে আটক করে হোমনা থানা পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার হওয়া শিশুটি গত কয়েক বছর ধরে ওপারচর গ্রামের আজমল হোসেনের ঘরে গৃহ পরিচারিকার কাজ করে আসছে এবং সে ওপারচর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। সোমবার দুপুরে প্রতিবেশি আব্দুর রহমানের ছেলে কলেজ পড়ুয়া সাইদুর রহমান সাব্বির শিশুটিকে একা পেয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় শিশুটির শোর-চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ওই স্কুলের এক শিক্ষিকার সহযোগিতায় শিশুটিকে উদ্ধার করে। এসময় ধর্ষক পালিয়ে যায়। পরে শিশুটিকে গোসল করিয়ে পরনের কাপড় পরিষ্কার করে ঘটনা ধামা-চাপা দেয়ার চেস্টা করে আজমল হোসেনের পরিবারের সদস্যরা।
এই ঘটনায় খবর পেয়ে পুলিশের হোমনা মেঘনা অঞ্চলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিম ঘটনাস্থলে যান, ঘটনার সত্যতার পেয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এরপর ভিকটিমের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন এবং প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে ধর্ষক সাইদুর রহমান সাব্বিরকে আটক করে হোমনা থানা পুলিশ।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোমনা সার্কেল ফজলুল করিম জানান, আমরা গৃহপরিচারিকা শিশুটিকে উদ্ধার করেছি। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অভিযুক্ত সাব্বিরকে আমরা প্রযুক্তি আটক করতে সক্ষম হয়েছি। ভিকটিম একাধিক বার ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে জানিয়েছেন।